Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / আগামীতে তানোর পৌর যুবলীগ সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই আবুল বাশার সুজনকে

আগামীতে তানোর পৌর যুবলীগ সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই আবুল বাশার সুজনকে

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

আগামীতে রাজশাহী তানোর পৌর যুবলীগের সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই রাজশাহী মহানগর বোয়ালিয়া শাখার সংগ্ৰামী সহ-সভাপতি আবুল বাশার সুজনকে তৃনমুলের এবং আওয়ামী লীগের সকল সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে তানোর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সংগ্রামী সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবং স্থানীয় সাংসদের বিশ্বাস যোগ্য ব্যক্তিত্ব,জনাব মোঃ আবুল বাশার সুজন । তিনি আদর্শিক প্রশিদ্ধ ব্যাবসায়ী সমাজ সেবক রাজশাহী মহানগর বোয়ালীয়া শাখার সংগ্ৰামী সহ-সভাপতি তরুণ-মেধাবী নেতৃত্ব ও তরুণদের নয়নমনি জননেতা আবুল বাশার সুজন গণতন্ত্র ও জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে যাচ্ছেন। সামনের সারিতে দিয়েছেন সফল নেতৃত্ব। দল ও জনগণের অধিকার রক্ষায় তিনি একজন নিবেদিত প্রাণ, জনবান্ধব, আদর্শিক, পরীক্ষিত ও লড়াকু সৈনিক হিসেবে ধীরে ধীরে গণমানুষের আস্থার প্রতিক ও নেতায় পরিণত হয়ে উঠেছেন ।
তাই তৃণমূল আবুল বাশার সুজনকেই তানোর পৌর যুবলীগের সভাপতি হিসেবে বিবেচনা করছে। তার ওপর আস্থা ভরসাও রাখছেন ।
তিনি উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ বা সহযোগী সকল সংগঠনের যেসব নেতাকর্মীরা বিছিন্ন হয়ে আছেন তাদের বাড়িতে গিয়ে বুঝিয়ে দলে ফিরিয়ে আনতে নিরলশ পরিশ্রম দিয়ে মেধা দিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকারের উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিতে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।
ইতমধ্যে আবুল বাশার সুজন তার নেতৃত্বের গুণে গণমানুষের নেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগী সকল সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাছে সমানভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন । এসব সংগঠনের নেতাকর্মীরা এখনো তাকেই তাদের প্রতিনিধি মনে করেন ও তাদের যে কোন সমস্যায় ছুটে আসেন আবুল বাশার সুজনের কাছে। সমস্যার সমাধান পাওয়া না পাওয়া বড় কথা নয়, কিন্তু মনোযোগ সহকারে তাদের কথা শোনেন।ও দিক নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করতে বলেন।
তানোর পৌর যুবলীগ ওয়াজির হাসান সরকার (প্রতাব) কিছু বলেন, সুজন মামার কথা বলে শেষ করা যাবে না কারণ তিনি এমন একটি মানুষ তার তুলনা হয়না।
তানোর থানা আওয়ামী লীগের সকল সংগঠনকে তিনি একটি শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলতে নিরলশ পরিশ্রম করছেন এবং স্পেশাল ফোর্স হিসাবে তিনি যুবলীগকে শক্তিশালী ও সংগ্রামী বানিয়েছে ।
তানোরে ৭ টি ইউনিয়ন ও দুটি পৌরসভার সব নেতা কর্মী তাকে নিয়ে ভাবছেন। আমি মনে করি আগামীতে আবুল বাশার সুজন কে তানোর পৌর যুবলীগের লীগের সভাপতি হলে তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগ একটি শক্তিশালী, সু সংগঠিত দল হিসাবে পরিণত হবে।

Check Also

দেশবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানালেন- ইউপি’র চেয়ারম্যান আসাদুল্লাহ আসাদ

ময়মনসিংহ ত্রিশাল থেকে এস.এম রুবেল আকন্দ: পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *