Breaking News
Home / অপরাধ / হবিগঞ্জে সরকারি ধান সংগ্রহে কৃষকের তালিকায় প্রবাসী ও মৃত ব্যক্তির নাম

হবিগঞ্জে সরকারি ধান সংগ্রহে কৃষকের তালিকায় প্রবাসী ও মৃত ব্যক্তির নাম

মোহাম্মদ শাহ্ আলম :

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে সরকারি ধান সংগ্রহে কৃষকের তালিকায় প্রবাসী, মৃত ব্যক্তি, একই পরিবারের একাধিক সদস্যের নাম ও স্বজনপ্রীতির সত্যতা পেয়েছে এ সংক্রান্ত তদন্ত কমিটি। এছাড়া কৃষকের তালিকায় চেয়ারম্যান-মেম্বারদের নিজেদের নামও রয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন তদন্ত কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার আতাউল গনি ওসমানী।

তিনি বলেন- ‘সরকারি ধান সংগ্রহের জন্য প্রকৃত কৃষকদের যে তালিকা তৈরী করা হয়েছিলো সেটিতে প্রবাসী, মৃত ব্যক্তি ও একই পরিবারের একাধিক সদস্যের নাম থাকাসহ বিভিন্ন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে শীঘ্রিই তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলায় সরকারি ধান সংগ্রহের জন্য প্রকৃত কৃষকদের তালিকা তৈরীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছিলো ইউনিয়ন কৃষি উপ-সহকারী ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের। কিন্তু তাঁরা যে তালিকা তৈরী করে সেটিতে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ উঠে। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে সংবাদ প্রচার হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৯ জুন উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার আতাউল গনি ওসমানীকে আহবায়ক করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে উপজেলা প্রশাসন। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করার পর প্রায় সবগুলো অভিযোগের সত্যতা পায় তদন্ত কমিটি।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সরকারি ধান-চাল সংগ্রহ কমিটির সভাপতি তৌহিদ-বিন হাসান বলেন, ‘তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ বলেন, তদন্ত কমিটি সূত্রে জেনেছি সরকারি ধান সংগ্রহে কৃষকের তালিকায় অনিয়মের সত্যতা পাওয়া গেছে। তবে প্রকৃত কৃষকদের বাহিরে রেখে যারা নিজের স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে তালিকা তৈরী করেছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Check Also

শিক্ষিকা মায়া রানী ঘোষ হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন, আসামি গ্রেফতার

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহী মহানগরীর কুমারপাড়ায় অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা মায়া ঘোষ হত্যার ঘটনায় ঘাতক রাজমিস্ত্রি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *