Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / এক গৃহবধূকে মারধর,ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

এক গৃহবধূকে মারধর,ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ থানাধীন ১৩ নং পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড বড় রঘুনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ সুমন খাঁন এর স্ত্রী সূবর্না কে মারধর করে ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মজিবর আকন ও তার ছেলে মোঃ সোহাগ আকন সহ কয়েকজন মিলে ঐ গৃহবধূ সহ কয়েকজন কেও মারধর করেন। ঐ গৃহবধূ ও তার স্বামী সুমন খাঁন গুরুতর আহত হন। এমনই ঘটনা ঘটে গত ১৩/১০/২০২১ ইং তারিখে সূবর্নার বাবার বাড়িতে। ঐ দিনই ইউপি সদস্য মোঃ মজিবর আকন সহ কয়েকজন কে আসামি করে বাকেরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন গৃহবধূ সূবর্না। এবিষয়ে সূবর্নার কাছে জানতে চাইলে তিনি সংবাদকর্মীদের জানান পূর্বে ইউপি নির্বাচনে আমার মা বর্তমান মেম্বার মজিবর আকন কে ভোট দেয় নাই এমনটাই বলে আসছে। নির্বাচন কে কেন্দ্র করেই আমাদের সাথে শত্রুতা মজিবর মেম্বার ও তার ছেলে সোহাগ প্রতি নিয়তই আমাদের পরিবারের সকলকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। গত ১৩/১০/২০২১ ইং তারিখে বিয়ের অনুষ্ঠান ছিলো দূরদূরান্ত থেকে আসা মেহমানদের সামনেই আমাদের উপর হামলা চালায় তাদের এই বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত না দেওয়ার কারণে এবং নির্বাচনে তাদের পক্ষে কাজ না করার কারণে অনুষ্ঠানের পেন্ডেল সহ ডেকোরেটর মালামাল ভাংচুর করে এমনকি মেহমানদের জন্য তৈরি খাবার নষ্ট করে মজিবর আকন ও তার ছেলে সোহাগ এবং তার সাথে থাকা সন্ত্রাসী বাহিনী। সন্ত্রাসীদের হামলায় কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি গ্রস্থ হয় এছাড়াও আমি ও আমার স্বামী সুমন খাঁন সহ কয়েকজন গুরুতর আহত হই। এবিষয়ে আমি বাকেরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেছি কিন্তু পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করেনি। এবিষয়ে ১৩ নং পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড মেম্বার যিনি থানায় দায়েরকৃত অভিযোগের আসামি মজিবর আকন এর সাথে ফোনে কথা বললে তিনি জানান আমার ছেলে সহ কয়েকজন বিয়ের অনুষ্ঠানে একটি ছোটো খাটো বিষয় নিয়ে তর্ক বিতর্কের মধ্যদিয়েই মারামারির ঘটনা ঘটে। উক্ত বিষয়ে বাকেরগঞ্জ থানায় অভিযোগ হয়েছে তা সত্য এমনকি ঘটনা স্থানে এস আই মামুন ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করে গিয়েছেন তা সত্য। এবিষয়ে ৯ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ রফিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান দুলাল কন্টেক্টার একজন ভালো মানুষ তার মেয়ে ও মেয়ের জামাইয়ের উপর হামলার ঘটনাটি দুঃখ জনক আমি ঘটনা স্থানে গিয়েছি এবং উভয় পক্ষের মধ্যে আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করে আসছি। উল্লেখিত বিষয়ে বাকেরগঞ্জ থানায় কর্মরত এস আই মামুন এর সাথে ফোনে কথা বললে তিনি সংবাদ কর্মীদের জানায় গত ১৩/১০/২০২১ ইং তারিখে সূবর্না আক্তার স্বামী সুমন নামের এক গৃহবধূর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। উক্ত অভিযোগের তদন্ত করতে আমি ঘটনা স্থানে গিয়েছি।বিয়ের অনুষ্ঠানে মারপিটের ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে বাদী যদি মামলা করে অবশ্যই মামলা রুজু হবে তবে স্থানীয়রা চাইছেন তারা সামাজিক ভাবে উভয় পক্ষের মধ্যে মিমাংসা করে দেওয়ার জন্য। তিনি আরও বলেন মূলত পূর্বের ইউপি নির্বাচনের সময় সূবর্নার মা মজিবর আকন মেম্বারের বিরোধিতা করেছেন সেই ক্ষোভেই বিয়ের অনুষ্ঠানে মারপিটে ঘটনা ঘটেছে। বাদী মামলা করলে সকল আসামিদের বিরুদ্ধে আইন আনুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে কোনো ধরনের ছাড় দেয়া হবেনা।

ফাহাদ আহমেদ মিঠু ঃঃবরিশাল::

Check Also

নতুন বছরের শুরুতে প্রতিবন্ধি জাহাঙ্গীরের পাশে তৌফিক এন্টারপ্রাইজ

আশিকুর রহমান নয়নমাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন এক নং তাইন্দং বাজারের তৌফিক এন্টারপ্রাইজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *