Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / ব্যারিস্টারি পড়তে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন ফাহাদ প্রামাণিক

ব্যারিস্টারি পড়তে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন ফাহাদ প্রামাণিক

সুকুমার বাবু দাস, স্টাফ রিপোর্টারঃ
যুক্তরাজ্যের লন্ডনের ব্রিকলেন সহড়ে ব্যারিস্টারি পড়াশোনা করতে জান পঞ্চগড়ের ফাহাদ হোসেন প্রামাণিক (২৭)। তবে দুর্বৃত্তের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে লাশ হয়ে ফিরতে হয় ফাহাদ প্রামাণিকে।
ফাহাদ প্রামাণিক পঞ্চগড় সদর উপজেলার চাকলা হাট ইউনিয়নের নেকিপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী নাজমুল হক প্রামাণিকের ছেলে। পরিবারের সদস্যরা বলেন, পঞ্চগড় বিষ্ণু প্রসাদ (বিপি) সরকারি উচ্চবিদ্যালয় থেকে ২০০৯ সালে এসএসসি পাস করেন ফাহাদ। এরপর ঢাকার ভূঁইয়া একাডেমি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। উচ্চশিক্ষা অর্জন করে ভালো আইনজীবী হওয়ার স্বপ্ন ছিল তাঁর। পরে ব্যারিস্টার অ্যাট ল ডিগ্রি নিতে ২০১৮ সালে যুক্তরাজ্যে চলে যান ফাহাদ প্রামানিক। পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি জরুরি কোভিড–সেবা বিভাগে একটি চাকরিও করছিলেন। আমার জানতে পারি ১৫ সেপ্টেম্বর পঞ্চগড় জেলা প্রশাসন ও পুলিশের মাধ্যমে ফাহাদের খুন হওয়ার বিষয়টি। তারা বলেন, গত ১২ সেপ্টেম্বর যুক্তরাজ্যের ব্রিস্টল শহরে একটি বাড়িতে দুর্বৃত্তের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হন ফাহাদ প্রামাণিক। পরদিন পুলিশ ওই বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ফাহাদসহ দুজনের লাশ উদ্ধার করে। তবে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে পুলিশ ইতিমধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানা গেছে। এবং গতকাল সোমবার রাতে হত্যাকাণ্ডের এক মাস পর তাঁর লাশ পৌঁছায় বাড়িতে। ফাহাদের লাশ আসবে বলে সন্ধ্যা থেকেই পাড়া-প্রতিবেশী ও স্বজনেরা ভিড় করছিলেন তাঁদের বাড়িতে। আজ সকাল ১০টায় পঞ্চগড় শহরের দারুল উলুম মাদ্রাসা মাঠে ফাহাদের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বেলা সাড়ে ১১টায় সদর উপজেলার চাকলা হাট ইউনিয়নের নেকিপাড়া এলাকায় তৃতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। এর আগে গত শুক্রবার যুক্তরাজ্যের ব্রিকলেন জামে মসজিদে ফাহাদের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে লাশটি বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করে বাংলাদেশ হাইকমিশন।

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ের কৃতি সন্তান ড.আনোয়ার খসরু বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় স্থান পেয়েছে

অন্তর্জাতিক সংস্থা আলপার-ডগার (এডি) বৈজ্ঞানিক সূচক এর বিশ্বসেরা বিজ্ঞানী ও গবেষকদের তালিকায় জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *