Breaking News
Home / অপরাধ / এজাহারে যা বলা হয়েছে

এজাহারে যা বলা হয়েছে

বনানী থানায় দায়ের হওয়া মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আসামি খালেদ হাসান মতিন ও তাঁর সহযোগী ‘আসিফ’ আদালতের শর্ত ভেঙে লেকহেড গ্রামার স্কুল দ্রুত চালুর চেষ্টা করছিলেন। এ জন্য তাঁরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চমান সহকারী মো. নাসিরউদ্দীন ও শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। গত ১৬ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা ও কর্মচারী লেকহেড গ্রামার স্কুলের মালিক খালেদ হাসান মতিনের গাড়িতে করে বনানীর আর এম গ্রুপের অফিসে যান। লেকহেড গ্রামার স্কুল দ্রুত চালুর ব্যাপারে সহযোগিতার জন্য ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা ঘুষের রফা হয়। এর অংশ হিসেবে ১৮ ডিসেম্বর মো. নাসিরউদ্দীন ওই অফিসে গিয়ে খালেদ হাসান মতিনের কাছ থেকে প্রথম দফায় ৫০ হাজার টাকা নেন। বাকি টাকা থেকে গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর তিনি ৫০ হাজার টাকা ও ১১ জানুয়ারি ২ লাখ টাকা নেন তাঁরা। উৎকোচের একটা অংশ পান শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আরও দু–একজন কর্মকর্তাও ঘুষের একটা অংশ পেতেন।

টাকার বিনিময়ে ওই কর্মকর্তারা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে থাকা লেকহেড গ্রামার স্কুলের গোপন নথিপত্র খালেদ হাসান মতিনকে দিয়ে দেন বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়। আরও বলা হয়, খালেদ হাসান মতিন তাঁর বন্ধু রেজওয়ান হারুনকে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ যুবকদের জামায়াতুল মুসলেমিন নামের জঙ্গি সংগঠনে যোগদানে সহায়তা করতেন।

উপপরিদর্শক মো. মনিরুল ইসলাম মৃধা এজাহারে উল্লেখ করেছেন, ২২ জানুয়ারি (সোমবার) তিনি খবর পান ঘুষের বাকি থাকা ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ওই দিনই কোনো এক সময়ে বনানীতে লেনদেন হবে। ওই দিন বিকেল ৫টার দিকে মো. নাসিরউদ্দীন ঘুষ নিয়ে বেরিয়ে আসার সময় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়েন। তাঁর কাছ থেকে ১ হাজার টাকার ১৩০টি নোট উদ্ধার হয়। নাসিরউদ্দীন নিজেই বনানীর ওই অফিসে ঢুকে খালেদ হাসান মতিনকে শনাক্ত করেন। পরে তাৎক্ষণিকভাবে প্রযুক্তিগত বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ওই দুজনের সঙ্গেই শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেনের যোগাযোগ রয়েছে। পরে তাঁকে সোমবার পৌনে ৮টার সময় ধানমন্ডি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে, ঘুষ ও দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার মো. মোতালেব হোসেন ও মো. নাসিরউদ্দীনকে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ কথা জানান। 

Check Also

শিক্ষিকা মায়া রানী ঘোষ হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন, আসামি গ্রেফতার

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহী মহানগরীর কুমারপাড়ায় অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষিকা মায়া ঘোষ হত্যার ঘটনায় ঘাতক রাজমিস্ত্রি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *