Breaking News
Home / অপরাধ / নীলফামারীতে ভাগিনার লাঠির আঘাতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে মামি

নীলফামারীতে ভাগিনার লাঠির আঘাতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে মামি

মো: মোশফিকুর ইসলাম, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীতে ভাগিনার লাঠির আঘাতে মামি গুরুতর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে । বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) দুপুরে নীলফামারী সদর উপজেলার ইটাখোলার শিমুলতলী মোড়ের পূর্ব পার্শ্বে বাশঝাড়ের কাছে এই মারামারি ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। 

থানার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শিমুলতলী মোড়ের দিয়ে মোঃ বেলাল শাহ্ সাইকেলে করে আসছিল হঠাৎ করে কোথা থেকে জানি মামাতে ভাই মোঃ আনোয়ার হোসেন এসে সার্টের কলার ধরে তাকে সাইকেল থেকে ফেলে দিয় এবং মোঃ আসাদ আলী, মোঃ কাল্টু মামুদ ও মোঃ আরিফ এসে তাকে এলোপাথারি মারতে শুরু করে। মারার কথা শুনে বেলালের বাবা-মা মোঃ শাহ্ আলম ও বেলী বেগম ঘটনা স্থলে গিয়ে বেলালকে মারার কারণ জানতে চাইলে কোনো জবাব না দিয়ে মোঃ কাল্টু মামুদ বেলালের মায়ের চুলের মুঠি ধরে মাটিতে ফেলে দিয়ে এলোপাথারি মারতে  শুরু করে। অপরদিকে মোঃ আনোয়ার হোসেন ঘাস নিরানি যন্ত্র দিয়ে বেলার পিতা শাহ আলমকে বুকে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।

থানার এজাহার সূত্রে আরো জানা যায়, এসময় মোঃ বেলাল হোসেন নীলফামারী সোনালী ব্যাংক থেকে তেরো হাজার সাতশত টাকা উঠিয়ে বাড়ী আসতেছিল। এসময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আসামী মোঃ আনোয়ার হোসেন , মোঃ আসাদ আলী, মোঃ কাল্টু মামুদ ও মোঃ আরিফ সবাই মিলে তাদেরকে সুযোগ বুঝে হত্যার উদ্দ্যেশ্যে মারতে শুরু করে এবং তার পকেটে থাকা ১৩৭০০ টাকা জোর করে বের করে নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী মশিউর রহমান শাহ্, লিমা বেগম, ফুলো বেগম, আব্দুস সবুর শাহ্, জুয়েল আলী শাহ্ সহ অন্যন্যরা মিলে বেলাল শাহ্ ও তার বাবা-মা কে মোঃ আনোয়ার হোসেন , মোঃ আসাদ আলী, মোঃ কাল্টু মামুদ ও মোঃ আরিফ এর হাত থেকে রক্ষা করে। এবং তারা বিভিন্ন ভয় ভিতি দেখিয়ে বলে আজকে প্রানে বেচে গেলি সুযোগ পেলে তোদের মেরে লাশ গুম করে দিবো হুমকি দেয় বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা। এমত অবস্থায় মোঃ বেলাল শাহ্ ও তার বাবা মায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখলে প্রত্যক্ষদর্শীরা তাদের নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়।

এ বিষয়ে নীলফামারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোমিনুল ইসলাম মোমিন জানায়, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এজাহার গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আরো জানা যায়, মোঃ আনোয়ার হোসেন ও মোঃ আসাদ আলী তার শিমুলতলীর সারের দোকানের মালপত্র বাহিরে ফেলে দিয়ে বেলাল ও তার পরিবারকে ফাসানোর উদ্দ্যেশে তারাও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা।

Check Also

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ( ববি) তে ২০২০-২১ স্নাতক ( সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার মেধাতালিকা প্রকাশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *