Breaking News
Home / খেলাধুলা / বেশিদূর যেতে পারলো না জিম্বাবুয়ে

বেশিদূর যেতে পারলো না জিম্বাবুয়ে

লঙ্কান পেসারদের তোপে বেশিদূর যেতে পারলো না জিম্বাবুয়ে। ১৯৮ রানেই অলআউট হয়ে গেছে গ্রায়েম ক্রেমারের দল। শুরুটা করেছিলেন থিসারা পেরেরা। জিম্বাবুয়ের টপ অর্ডারকে একরকম অকার্যকরই করে দেন এ পেসার। শেষ দিকে নুয়ান প্রদীপের তোপে আটকে যায় জিম্বাবুয়ে। জিম্বাবুয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৮ রান এসেছে ব্রেন্ডন টেইলরের ব্যাট থেকে। এছাড়া শেষ দিকে অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার করেছেন ৩৪ রান। পেরেরার ৪ উইকেটের পাশাপাশি ৩টি উইকেট নিয়েছেন প্রদীপ।

সংক্ষিপ্ত উইকেট:

জিম্বাবুয়ে ১৯৮/১০  (টেইলর ৫৮; পেরেরা ৪/৩৩, প্রদীপ ৩/২৮)
ব্যাটিং বিপর্যয়ে চাপে জিম্বাবুয়ে

টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্তটাকে এখন পর্যন্ত সঠিক প্রমাণ করতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। শুরু থেকেই জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরে পেরেরা, সান্দাকানরা। মূলত থিসারা পেরেরার পেসে দাঁড়াতেই পারেননি জিম্বাবুয়ের টপ অর্ডার।
৪৪ রানে  প্রথম উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। ওপেনার হ্যামিলটন মাসাকাদজা ফেরেন ২০ রানে। এরপর ৩২ রান তুলতেই চলে যায় আরও তিন উইকেট। ক্রেইগ এরভিন ফেরেন মাত্র ২ রানে। এরপর সুলেমান মিরে ফেরেন ২১ রানে।

বল হাতে প্রথম ওভারেই সিকান্দার রাজাকে ফেরান সান্দাকান। স্কোরে যোগ হতে পারতো আরও একটি উইকেট। তবে লাকমলের বলে এলবিডব্লিউ থেকে রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান ওয়ালার। পরের বলেই ওয়ালারের সহজ ক্যাচ মিস করেন উপল থারাঙ্গা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
জিম্বাবুয়ে ৯১/৪ (২০) টেইলর* ১৯, ওয়ালার* ৩।
‘বাঁচা-মরা’র লড়াইয়ে টস ভাগ্যও শ্রীলঙ্কানদের বিপক্ষে

ত্রিদেশীয় সিরিজের চতুর্থ এবং নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে টস আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। বিকেলে শিশির ফ্যাক্ট থাকার পরেও এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জিম্বাবুয়ে দলপতি গ্রায়েম ক্রেমার।
মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি লঙ্কানদের জন্য সিরিজে টিকে থাকার লড়াই।

সবশেষ ৩৩ ম্যাচে মাত্র চারটি জয়। ক্রিকেট পরাশক্তি শ্রীলঙ্কা তাদের কোচ এবং অধিনায়ক পরিবর্তন করেছেন। তবে জয়ের দেখা মিলছে না। ত্রিদেশীয় সিরিজেও টানা দুই ম্যাচে হার। টুর্নামেন্টে ফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে আজ জয়ের কোন বিকল্প নেই।
তবে টস হেরে শুরুতেই ধাক্কা খেতে হলো লঙ্কান অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমালকে।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১২ রানে হারের পর বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৬৩ রানের বিশাল লজ্জা শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে গেছে আত্মবিশ্বাসের তলানিতে। অপরদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে বাজেভাবে হারলেও লঙ্কানদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়িয়েছে জিম্বাবুয়ে। এ ম্যাচে তাই আত্মবিশ্বাসে এগিয়েই থাকছে আফ্রিকান দলটি।

দাপট দেখিয়ে টানা দুই ম্যাচ জিতে এরইমধ্যে ফাইনাল ‘নিশ্চিত’ করেছে বাংলাদেশ। আজ জিম্ববুয়ে জিতে গেলে গ্রুপ পর্বের বাকি ম্যাচগুলো হয়ে যাবে কেবলই আনুষ্ঠানিকতা। ২৭ জানুয়ারির ফাইনালে টাইগারদের মুখোমুখি হবে জিম্বাবুয়ে। শ্রীলঙ্কা একাদশ: কুশাল পেরেরা, উপল থারাঙ্গা, কুশাল মেন্ডিস, নিরোশান ডিকওয়েলা, দিনেশ চান্দিমাল (অধিনায়ক), অ্যাশলে গুনারত্নে, থিসারা পেরেরা, আকিলা ধনঞ্জয়, সুরাঙ্গা লাকমল, লক্ষণ সান্দাকান এবং নুয়ান প্রদীপ।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: হ্যামিলটন মাসাকাদজা, সুলেমান মিরে, ক্রেইগ এরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর, সিকান্দার রাজা, ম্যালকম ওয়ালার, পিটার মুর, গ্রায়েম ক্রেমার (অধিনায়ক), কাইল জারভিস, টেনডাই চাতারা এবং ব্লেসিং মুজারাবানি।

Check Also

সভাপতি ইয়াকুব : সাধারণ সম্পাদক আবু সায়েম ঠাকুরগাঁও জেলা সিপিবির ত্রয়োদশ সম্মেলন অনুষ্ঠিত 

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার উদ্যোগে ত্রয়োদশ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার( ২৪ জানুয়ারি) পৌর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *