Breaking News
Home / অপরাধ / মারধরের অভিযোগে এক ফাঁড়ির ১২ পুলিশ প্রত্যাহার

মারধরের অভিযোগে এক ফাঁড়ির ১২ পুলিশ প্রত্যাহার

খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলায় গতকাল মঙ্গলবার এক স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় তার ভাইকে বাইনতলা ফাঁড়িতে নিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠেছে পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। এ অভিযোগের পর ওই ফাঁড়ির ১২ পুলিশ সদস্যের সবাইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্র বলেছে, বটিয়াঘাটার আমীরপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করতেন বাইনতলা ফাঁড়ির কয়েকজন কনস্টেবল। তাঁদের মধ্যে কনস্টেবল মো. নাঈম গতকাল সকাল ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করেন। ওই ছাত্রী বাইনতলা মোড়ে তার ভাইয়ের দোকানে গিয়ে ঘটনা জানায়। ভাই উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করলে পুলিশ তাঁকে ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে শারীরিক নির্যাতনের পর হাজতে আটকে রাখে। খবর পেয়ে গ্রামবাসী ফাঁড়িতে গেলে পুলিশের সঙ্গে কয়েকজনের ধস্তাধস্তি হয়। গ্রামবাসী ফাঁড়ি ঘিরে রাখেন। আমীরপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গোলদার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং বটিয়াঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) ঘটনা জানান। ওসি মোজাম্মেল হক ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যান এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। খুলনার পুলিশ সুপার ঘটনা জানার পর দুপুরে কনস্টেবল মো. নাঈম, মামুন, রিয়াজ, আবির ও জাহীদকে ফাঁড়ি থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন। পরে বিকেলে ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহকারী উপপরিদর্শক তারিকুজ্জামানসহ বাকি সাত সদস্যকেও প্রত্যাহার করা হয়।

Check Also

ধামরাইয়ে ৩শত পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

মোঃ বুলবুল খান পলাশ, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ-ঢাকার ধামরাইয়ে নিজ ব্যক্তিগত তহবিল থেকে করোনাকালীন সময়ে পৌর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *