Breaking News
Home / আইন ও আদালত / তানোর পৌর নির্বাচনে আবুল বাশার সুজন সকলের দোয়া চাই

তানোর পৌর নির্বাচনে আবুল বাশার সুজন সকলের দোয়া চাই

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তানোর পৌর এলাকার বাসিন্দা, প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার (ব্যবসায়ী) মেধাবী ও তরুণ নেতৃত্ব আবুল বাশার সুজন তানোর পৌরসভার আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ইচ্ছে প্রকাশ করে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে দলমত সবশ্রেণী পেশার মানুষের কাছে তিনি দোয়া প্রার্থনা করে তাকে সহযোগীতার আহবান জানিয়ে মাঠে নেমেছেন। আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান হিসেবে তানোর পৌর এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন ও সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। উচ্চ শিক্ষিত, পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ইমেজ, ত্যাগী, নিবেদিতপ্রাণ ও তরুণ নেতৃত্ব হিসেবে পৌরবাসির মধ্যে তার একটি আলাদা গ্রহযোগ্যতা তৈরী হয়েছে। পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ইমেজ সম্পন্ন প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে প্রতিদন্দিতার দৌড়ে তিনিই একমাত্র প্রার্থী এবং তাঁর অনুগত বিশাল কর্মী-বাহিনী রয়েছে ইতমধ্যে তারা যেকোনো মূল্যে তাকে নিয়ে পৌরসভা নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে মাঠে শক্ত অবস্থান গড়ে তুলে দলের নীতিনির্ধারক মহল ও সাধারণ মানুষের দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হয়েছে। এসব বিবেচনায় আগামী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হলে তার বিজয়ের সম্ভবনা অত্যন্ত উজ্জল বলে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত। অপরদিকে বিভিন্ন সময়ে ঘরোয়া আড্ডায় নাগরিকগণের কাছে অঙ্গীকার প্রকাশ করে তিনি বলেন, বিজয়ী হলে তিনি তার সকল যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে পৌরসভার অবহেলিত জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করবেন। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে তিনি রাজনীতি করেন। ফলে তাঁর ব্যক্তিগত কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই, মূত্যুর আগে তিনি তানোর পৌরবাসির জন্য একটা কিছু করে যেতে চান। ইতমধ্যে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড তাকে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত, আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেলেই সুজনের বিজয় প্রায় নিশ্চিত। তানোর পৌরসভা বিএনপির আঁতুড় ঘর এখানে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করে সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করতে নেতার যে ধরণের ব্যক্তি ইমেজ, পারিবারিক ঐতিহ্য, সামাজিক পরিচিতি, আর্থিক স্বচ্ছলতা ও কর্মীবাহিনী ইত্যাদি প্রয়োজন সেই সব ধরণের গুণের অধিকারী আবুল বাশার সুজন এসব বিবেচনায় তিনিই আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হচ্ছেন এটা প্রায় নিশ্চিত।
জানা গেছে, রাজনৈতিক সচেতন ও সমভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে আবুল বাশার সুজনের জন্ম এবং প্রথম শ্রেণীর প্রসিদ্ধ (ঠিকাদার) ব্যবসায়ী হওয়ায় পৌরসভা জুড়ে তাঁর পরিবারের সামাজিক পরিচিতি রয়েছে এবং ছাত্র জীবন থেকেই তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে সম্পৃক্ত। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পর্যায়ে অনেক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে তার রয়েছে গভীর ও নিবিড় সম্পর্ক। মেধাবী ও তরুণ নেতৃত্ব একজন শিক্ষিত সৎ, যোগ্য ও ভালো মানুষ হিসেবে তার একটা পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ইমেজ রয়েছে সর্ব মহলে। আগামী পৌরসভা নির্বাচনে পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ইমেজ সম্পন্ন নেতৃত্ব হিসেবে তিনিই একমাত্র প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন। ফলে অনেক সুবিধেও রয়েছে তার পক্ষে। স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত, এসব বিবেচনায় আবুল বাশার সুজন আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হলে তার বিজয় প্রায় নিশ্চিত। তাকে একজন শক্ত প্রার্থী বলে বিবেচনা করছে প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা। তিনি আগামী পৌরসভা নির্বাচনে সকলের দোয়া চান।

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ১টি বাড়ি ভস্মীভূত

গীতি গমন চন্দ্র রায় গীতি, স্টাফ রিপোর্টার: ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ গতকাল রাত ১০/১১ ঘটিকার সময় হঠাৎ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *