Breaking News
Home / মফস্বল / কুষ্টিয়ায় ভর্তি হলেন আবরারের ছোট ভাই
ফাইয়াজের ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অধ্যক্ষের কাছে জমা দেন আবরারের বাবা। ছবিঃ সংগৃহীত

কুষ্টিয়ায় ভর্তি হলেন আবরারের ছোট ভাই

অনলাইন ডেস্ক

বুয়েটের হলে ছাত্রলীগের নির্মম নির্যাতনে নিহত আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ ভর্তি হয়েছেন কুষ্টিয়া সরকারী কলেজে। তিনি ঢাকা কলেজের একাদশ বিজ্ঞান বিভাগ ১ম বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার সময় কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয়ে ফাইয়াজের বাবা বরকত উল্লাহ আনুষঙ্গিক কাগজপত্র অধ্যক্ষের হাতে তুলে দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক কাজী মনজুর কাদির বলেন, ফাইয়াজের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে ভর্তি-সংক্রান্ত সব দায়িত্ব কর্তৃপক্ষ গ্রহণ করেছেন এবং আবরার ফাইয়াজের পরিবারকেও নিরাপত্তা শঙ্কামুক্ত হওয়ার আহ্বান করেছেন।

এ সময় সেখানে উপস্থিত ফাইয়াজের বাবা বরকত উল্লাহ কলেজ প্রধানের আশ্বাসে আশ্বস্ত হয়ে থাকতে চান এমন মত দিয়ে বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগেই কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মহোদয়ের কাছে ঢাকা কলেজের ছাড়পত্র ও ছবিসহ আনুষঙ্গিক কাগজপত্র জমা দিয়েছি। উনারা ইতিমধ্যেই প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন করে রেখেছেন। সে জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষকে আমি ধন্যবাদ জানাই’।

এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘দেখুন কে-ই বা পরিবার পরিজন নিয়ে জীবনভর অজানা শঙ্কায় দিন কাটাতে চায়? এখানে ভর্তি করে ফাইয়াজ পরিবারের সান্নিধ্যে থেকে পড়ালেখা করুন এটা ওর মায়েরও চাওয়া। ফাইয়াজকে যখন ঢাকা কলেজে ভর্তি করি তখন বড় ভাই আবরার ফাহাদ নিজের কাছে রেখে ওকে গড়ে তুলতে চেয়েছিল। এখন দেখা যাচ্ছে সে নাই, সে কারণে ফাইয়াজও একা ঢাকা থাকতে ইচ্ছুক না’।

‘তা ছাড়া ওর মা রোকেয়া খাতুনের শারীরিক ও মানসিক অবস্থাও খুব খারাপ। বড্ড বেশি ভেঙে পড়েছে। সেই সঙ্গে এক অজানা নিরাপত্তার শঙ্কা তো আছেই। সে কারণে সব বিষয় চিন্তা করেই ফাইয়াজকে ঢাকা থেকে নিয়ে আসলাম’।

তিনি আরো বলেন, এক দিকে শঙ্কামুক্ত থাকতে চাই এবং আমাদের ছেলে আমাদের কাছেই থাকে সে জন্যই ওকে এখানে ভর্তি করালাম। এ ছাড়া ওর লেখাপড়ার খোঁজখবর নেয়ার তো আর কেউ নেই, সে জন্য আমরাই এখন ওর পড়ালেখার খেয়াল রাখতে পারব’।

Check Also

দিনাজপুরে নারী দিবসে নারী বাইকারদের মটরসাইকেল র‌্যালী

মোঃ মঈন উদ্দীন চিশতী, দিনাজপুরঃ বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও যথাযোগ্য মর্যাদায় নারী দিবস উদযাপন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *