Breaking News
Home / মফস্বল / সোনাগাজী আ. লীগ: কমিটি থেকে বাদ নুসরাত হত্যার আসামি রুহুল আমিন

সোনাগাজী আ. লীগ: কমিটি থেকে বাদ নুসরাত হত্যার আসামি রুহুল আমিন

অনলাইন ডেস্ক

ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে ফেনীর সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। নবগঠিত কমিটিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার অন্যতম আসামি রুহুল আমিনকে সরিয়ে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক মো. মফিজুল হককে সভাপতি করা হয়েছে। এ ছাড়া পুনরায় সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সোনাগাজী পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন।

বুধবার বিকেলে সোনাগাজী মো. ছাবের সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত সম্মেলন শেষে তাদের নাম ঘোষণা করেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুর রহমান বিকম।

নুসরাত হত্যা মামলায় কারাগারে থাকায় গত ৩০ মে সভাপতি রুহুল আমিনকে সরিয়ে সহসভাপতি অধ্যাপক মো. মফিজুল হককে সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়। এর সাড়ে চার মাস পর দলীয় সম্মেলনে রুহুল আমিনকে সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক প্রটোকল অফিসার এবং ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম। অন্যদের মধ্যে অতিথি হিসেবে ছিলেন ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আক্রামুজ্জামান ও অ্যাডভোকেট প্রিয়রঞ্জণ দত্ত, দপ্তর সম্পাদক শহীদ খোন্দকার, সোনাগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন, ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল এবং পরশুরাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার।

দলীয় নেতাকর্মী ও এলাকার লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৯৯৭ সালে উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য ছিলেন রুহুল আমিন। একই বছর এক সমাবেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক ফয়েজুল কবিরের হাতে ফুল দিয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেন তিনি। ২০০১ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত সৌদি আরবে অবস্থান করেন রুহুল আমিন। দেশে ফিরে ২০১৩ সালে সোনাগাজী আওয়ামী লীগের সদস্য হন। এরপর ২০১৬ সালে সাংসদ নিজাম হাজারীর আশীর্বাদপুষ্ট হয়ে সোনাগাজী আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হন। ২০১৮ সালে সোনাগাজী আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন তিনি।

সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল রুহুল আমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৩০ মে রুহুল আমিনসহ ১৬ জনের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড চেয়ে আদালতে চার্জশিট জমা দেয় পিবিআই।

নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে সোনাগাজী ও ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, শুধু নুসরাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় পদ হারাতে হলো রুহুল আমিনকে।সূত্রঃ দেশ রূপান্তর

Check Also

৩৪ বোতল ফেন্সিডিল ও ১ মোটরসাইকেল উদ্ধার।

মোঃ আব্দুল্লাহ আল মমিন(পাটগ্রাম),লালমনিরহাট বিশেষ অভিযানে হাতীবান্ধা হাইওয়ে পুলিশ কর্তৃক ৩৪ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *