Breaking News
Home / জাতীয় / দুই হাজারের বেশি রোহিঙ্গার হাতে বাংলাদেশি পাসপোর্ট: দুদক

দুই হাজারের বেশি রোহিঙ্গার হাতে বাংলাদেশি পাসপোর্ট: দুদক

অনলাইন ডেস্ক

নির্বাচন কমিশনের চুরি যাওয়া ল্যাপটপ দিয়ে দুই হাজারের বেশি রোহিঙ্গার হাতে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট। বন্দুকযুদ্ধে নিহত রোহিঙ্গা ডাকাত নূর আলম ভুয়া জন্ম নিবন্ধন দিয়েই স্মাটকার্ড হাতিয়েছিলো। দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের প্রাথমিক তদন্তে বের হয়ে এসেছে চাঞ্চল্যকর এ তথ্য। সরাসরি সার্ভারের সঙ্গে সংযুক্ত এমন একটি ল্যাপটপসহ চট্টগ্রাম নির্বাচন কমিশনের এক কর্মচারীসহ তিনজনকে আটক করার পর বিষয়টি আরো স্পষ্ট হয়ে গেছে। আতঙ্কের বিষয় হলো সার্ভারের সঙ্গে সংযুক্ত অন্তত ৫ থেকে ৬টি ল্যাপটপের হদিস এখনও মিলছে না।

গত কয়েকদিন ধরে পাসপোর্ট অধিদপ্তর এবং বিভাগীয় নির্বাচন কমিশন কার্যালয় চষে বেড়াচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের বিশেষ দল। আর অনুসন্ধানে গিয়ে বের করে আনছে চমকে ওঠার মতো একের পর এক তথ্য। বাংলাদেশী নাগরিকদেরই এনআইডি কিংবা স্মাটকার্ড নিতে গেলে নানা হয়রানির শিকার হতে হয়। অথচ টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত রোহিঙ্গা ডাকাত নুরুল আলম শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়েই পেয়ে যায় স্মাটকার্ড। অন্যকোনো নথিপত্র’ই তাকে জমা দিতে হয়নি। কিন্তু সেই জন্ম নিবন্ধন টাও জাল বলে দাবি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলের।

চট্টগ্রাম ৭ নং ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোবারক আলী বলেন, জন্ম নিবন্ধন বাংলাদেশের যে কোন জায়গা থেকে সে পেয়ে থাকতে পারে। তবে এটা আমাদের ওয়ার্ডে নয়, সেটা আমরা নিশ্চিত।

শুধু নুরুল আলমের স্মাট কার্ড পাওয়া নয়, গত কয়েক বছরে দু’হাজারের বেশি রোহিঙ্গা এনআইডি কার্ড পেয়ে গেছে বলে প্রাথমিক তথ্য পেয়েছে দুদক। বিশেষ করে নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব ল্যাপটপ ব্যবহার করেই এসব রোহিঙ্গার নাম এনআইডি সার্ভারে যুক্ত হয়েছে। নূর আলমের তথ্য যুক্ত করা নির্বাচন কমিশনের ৪৩৯১ আইপি নম্বরের ল্যাপটপসহ অন্তত ৫টি ল্যাপটপের এখন হদিস মিলছে না। এসব ল্যাপটপ থেকেই চট্টগ্রামের বিভিন্ন ঠিকানা ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের এনআইডি সার্ভারে যুক্ত করা হয়েছে বলে প্রাথমিক তথ্য পেয়েছে দুদক।

চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন সহকারী পরিচালক রতন কুমার দাশ বলেন, জন্ম নিবন্ধন ফরমের যে নাম্বার রয়েছে, সেটা সঠিক না ভুয়া, সেটা যাচাই করার জন্য আমরা জেলা কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিকভাবে অনুরোধ করি। তিনি ভেরিফাই করে আমাদের জানিয়েছেন, এধরণের কোন জন্ম নিবন্ধন ফরম আমাদের সার্ভারে নেই।

এদিকে সোমবার রাতে নিবাচন কমিশন থেকে হারিয়ে যাওয়া ১টি ল্যাপটপসহ ৩ জনকে আটক করা হয়। নিবাচন কমিশনের ডবলমুরিং জোনের অফিস সহায়ক জয়নাল আবেদীন এই ল্যাপটপটি সরিয়ে ফেলেছিলেন। এই ল্যাপটপ দিয়ে রোহিঙ্গাদের এনআইডি সাভারে যুক্ত করার তথ্য পেয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ ঘটনায় নির্বাচন কর্মকর্তা পল্লবী চাকমা বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামী করে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন।

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, আমাদের অফিসের একজন এই ঘটনার সাথে যুক্ত আছে, এমন সুত্র পাওয়ার পরে আমরা সন্দেহ করি। এবং বিভিন্ন বিষয় যাচাই বাচাই করে দেখা যায় যে তার যোগসাজস আছে। তার জন্য আমরা তাকে সাময়িক ভাবে আটক করি।

নির্বাচন কমিশনের প্রাথমিক তদন্তে এনআইডি উইংয়ে যুক্ত হওয়া মাত্র ৭৩ জন রোহিঙ্গাকে চিহ্নিত করা হলেও দুদকের তথ্য এ সংখ্যা ২ হাজারের বেশি।

Check Also

সাবেক কাউন্সিলর নাসির ভূইয়া ইন্তেকাল করেছেন

নিজস্ব পতিবেদক: ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামীলীগের শ্যামপুর থানার অন্তগত ৪৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *