Breaking News
Home / জাতীয় / দীর্ঘ দিন থেকে ডেঙ্গু জ্বরে অাক্রান্ত সেচ্ছাসেবী স্বপন খাঁন।

দীর্ঘ দিন থেকে ডেঙ্গু জ্বরে অাক্রান্ত সেচ্ছাসেবী স্বপন খাঁন।

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: ফয়সাল মাহমুদ

লক্ষ্মীপুর, চন্দ্রগন্জ থানা ১৪ নং মান্দারী ইউনিয়ন, গন্ধর্ব্যপুর এর আলী উল্ল্যাহ খান সাহের বাড়ির নুর নবী খানের সন্তান। গন্ধর্ব্যপুর মানুষের প্রিয় মানুষ গরিব দুঃখীদের বন্ধু অসহাইদের বন্ধু যে সব সময় মানুষের কল্যান মানুষের উপকার করা নিয়ে চিন্তা করেন।

তিনি একজন সেচ্ছাসেবক মাহমুদুল হাসান স্বপন খাঁন দীর্ঘ দিন ডেঙ্গু জ্বরে অাক্রান্ত হয়ে র্ঢাকায় চিকিৎসারত অাছেন গত ২৮/৭/১৯ তারিখ তিনি প্রথম জ্বর অনুভব করেন এর পর তিনি ২৮ শে জুলাই তিনি আলরাজি হাসপাতাল ঢাকা ফার্মগেট এ ডাঃ মোঃ আজমান আলীর নিকট জান ডাঃ তাকে কয়েকটি টেষ্ট করতে বলেন এবং টেষ্ট গুলো করার পরের দিন রিপোর্ট পেয়ে ডাঃ তার ডেঙ্গুজ্বর সনাক্ত করেন ।

এর পর তিনি ডাঃ মোঃ রাজীবুল আলম এমবিবিএস এমডি. বঙ্গবন্ধু শেখ মজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। ওনার নিকট চিকিৎসা নিতে থাকেন এবং কিছু দিন পর ডাঃ রাজীবুল আলম তাকে আবারো কিছু টেষ্ট করতে বলেন এবং তিনি টেষ্ট গুলো করেন ০৩/০৮/১৯. রিপোর্ট গুলো নিয়ে আবারো ডাঃ এর কাছে জান ডাঃ রিপোর্ট গুলো দেখন এবং কিছু পরামর্শ দিয়ে তাকে ছেয়ে দেন।

তার পরেও শরিল এর অবস্থার অবনতি হবার কারলে তিনি ঢাকা মোহাখালী আইসিডিডিআর বি. হাসপাতালে জান সেখানে তাকে ৭/৮/১৯ তারিখে যান সেখানেও কিছু টেষ্ট করান এবং দিন দিন তার শরিল অর্ত্যন্ত দুর্বল হয়ে পড়ে মাথা ঘুরায় এবং ঘুম কম হয়। এবং প্রতিটি রিপোর্টে দেখা যায় যে তার রক্তের প্লাটিলেট ৪০ হাজার করে কমতে থাকে বর্তমানে তার প্লাটিলেট ১৮৮।
এমন অবস্থায় তার পরিবার ভাই বোন বন্ধু মহল সহ পুরে এলাকার মানুষ তাকে নিয়ে খুব চিন্তার আছেন.তার বড় ভাই মানিক হোসেন এবং মেযো ভাই টিপু সুলতান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন আমরা ডাঃ এর পরামর্শমতে তাকে চিকিৎসা দিচ্ছি তবুও দিন দিন তার শরিল এর অবস্থা খারাপ হচ্ছে আমরা খুবই চিন্তিত আমরা তার জন্য দেশ বাসীর নিকট দোয়া চাই আল্লাহ পাক যেনো তাকে সুস্থ করে আমাদের মাঝে পিরিয়ে দেন।

Check Also

নওগাঁর পোরশায় লকডাউনের পঞ্চম দিনে কঠোর অবস্থানে উপজেলা প্রশাসন

নাহিদ পোরশা, (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর পোরশায় লকডাউনের পঞ্চম দিনে জন সচেতনা বাড়াতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *