Breaking News
Home / অপরাধ / অবৈধ অর্থ উপার্জনই টি-আই জাকির ও মাহাবুবের মুল মন্ত্র।

অবৈধ অর্থ উপার্জনই টি-আই জাকির ও মাহাবুবের মুল মন্ত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজধানীর ডিপ্লোম্যাটিক জোন গুলশানে প্রায় শতাধিক অবৈধ সিএনজি হতে অসৎ উপায়ে অর্থ উপার্জন কারী ট্রাফিক পুলিশের অসাধু সদস্য টি-আই জাকির ও মাহাবুবের নিরব চাঁদাবাজি শীর্ষ রূপ ধারণ করেছে।এসব সিএনজির অনুমোদন দাতা দুই টিআই জাকির প্রতি মাসে অগ্রিম গাড়ি প্রতি ৫০০০/-টাকা ও মাহাবুব গাড়ি প্রতি ৬০০০/- টাকা মাশোহারা নিয়ে থাকেন তাতে তাদের একটি খাতের অবৈধ আয় মাসে কয়েক লক্ষ টাকা বিনা পরিশ্রমে এত টাকার লোভ কিছু তেই যেন হাত ছাড়া করতে চান না দুই অসৎ সদস্য। বেশছু দিন আগে কয়েকটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় অবৈধ সিএনজির প্রতিবেদন প্রকাশ হলে ট্রাফিক উত্তর বিভাগের প্রধান সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নজরে আসলে ট্রাফিক বিভাগের নিরলস পরিশ্রমে যে সুনাম অর্জিত হয়েছে তা যেন গুটি কয়েক অসৎ উপায়ে অর্থ উপার্জন কারী ট্রাফিক সদস্যদের হীন মানসিক কর্মের ফলে ট্রাফিক বিভাগের সুনাম ভস্মীভূত না হয় সে ব্যাপারে চলাচলরত অবৈধ সিএনজির আওতাধীন দায়িত্বরত ট্রাফিক সদস্যদের নির্দেশ দিলে কাকলি এলাকায় দায়িত্বরত সদস্যদের বোধশক্তি জাগ্রত হওয়ায় এসব সিএনজি বন্ধ থাকলেও অবৈধ অর্থ ব‍্যতীত কোন ভাবেই যেন দিন কাটে না নতুন বাজার ট্রাফিক বক্সের টি আই জাকির ও গুলশান ২নং বক্সের টি আই মাহাবুবের । বিশেষ সূত্রে জানা যায় কাকলি এলাকায় অবৈধ সিএনজি বন্ধ থাকায় ঐ সিএনজি গুলো চাঁদা সংগ্রহ সিন্ডিকেটের মহা গুরু একাধিক অভিযোগের চিহ্নিত অপরাধী কসাই শফিক ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড নোয়াখাইল্লা মানিকের মাধ্যমে নতুন বাজার গুলশান এলাকায় মোটা অংকের চুক্তিতে প্রবেশ করায় এতে দুই টি আইর উৎকোচের পরিমাণ আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। কয়েক জন গণমাধ্যম কর্মী তাদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। সূত্র জানায় নতুন বাজার ভাটারা এলাকায় চলাচলরত ইজিবাইক ও অটোরিকশা হতেও মোটা অংকের মাসোহারা দিতে হয় তাকে নির্ধারিত সময়ের ঘাটতি হলেই শুরু হয় রেকার ধরপাকড়। একটি চৌকস অনুসন্ধানী প্রতিবেদক টিম দুই টি-আইর অবৈধ অর্থ উপার্জনের অঢেল সম্পদের পরিমাণ অনুসন্ধানের কাজ করছে খুব শীঘ্রই তা জনস্বার্থে প্রকাশ করা হবে। ট্রাফিক বিভাগের দায়িত্বশীল নৈপুণ্যে অর্জিত সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে এধরনের সদস্যদের অবৈধ অর্থ উপার্জনের লালসার লাগাম যথাযথ কর্তৃপক্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে গোটা ট্রাফিক বিভাগের সড়ক শৃংখলায় যানযট নিরসনে নিরলস যে পরিশ্রমে অর্জিত সুনাম তার গ্লানি ঘটতে পারে বলে সুশীল সমাজের অভিমত।

Check Also

ধামরাইয়ে ৩শত পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

মোঃ বুলবুল খান পলাশ, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ-ঢাকার ধামরাইয়ে নিজ ব্যক্তিগত তহবিল থেকে করোনাকালীন সময়ে পৌর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *