Breaking News
Home / আইন ও আদালত / নেত্রকোণায় ঝুঁকিপূর্ণ রেল সেতু দিয়ে চলছে ট্রেন : দুর্ঘটনার আশংকা

নেত্রকোণায় ঝুঁকিপূর্ণ রেল সেতু দিয়ে চলছে ট্রেন : দুর্ঘটনার আশংকা

ইমন রহমান নেত্রকোণা প্রতিনিধি :

ঢাকা-মোহনগঞ্জ রেলপথের নেত্রকোণায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে দুটি রেল সেতু। জেলার ঠাকুরাকোণা কংশ নদীর উপর রেল সেতুটি স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ক্ষতিগ্রস্থ হলে সেসময় মেরামত করা হলেও গত চল্লিশ বছর ধরে চলছে নড়বড়ে অবস্থায়। ফলে যে কোনো মুর্হুতে দুর্ঘটনার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। তবে স্থানীয় রেল কর্তৃপক্ষ বলছে বিষটি দেখভালের দায়িত্ব তাদের নয়।

১৯২৭ সালে বৃটিশ আমলে ঠাকুরাকোণার রেল সেতুগুলো নির্মিত হলে ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের সময় বিধ্বস্থ হওয়ায় সে সময় সেতু দুটির আংশিক মেরামত করা হয়। এর পর থেকে জোড়া তালি দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে চলছে ট্রেন।
ঠাকুরাকোণা ও মোহনগঞ্জ সেতুর ফিলারে ফাটল দেখা দেওয়ায় যেকোনো সময় ভেঙ্গে পড়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। বর্তমানে রেল পারাপারের সময় সেতুগুলোতে কম্পনের সৃষ্টি হওয়ায় আতংকে রয়েছেন আশপাশের লোকজন।
কদমদেওলী গ্রামের আবুল কালাম আজাদ জানান, খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে রেল সেতুটি। কিছুদিন আগে রেল লাইন সংস্কার হলেও রেল সেতুটি সংস্কার করেনি কর্তৃপক্ষ। ফলে যেকোনো দিন বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
নেত্রকোণা শহরের সাতপাই এলাকার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম খান বলেন, সেতুটির কাঠের স্লীপারে কাঠের ছটি দিয়ে জোড়া তালি দিয়ে রাখা হয়েছে। যেকোনো মুহুর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
ওই এলাকার বাসিন্দা ইমুন আহমেদ জানান,সেতু দিয়ে ট্রেন যাওয়ার সময় কাঁপতে থাকে, যা ভয়ংকর অবস্থার সৃষ্টি হয়।
নেত্রকোণার বড় স্টেশনের মাস্টার মো: রফিক উদ্দিন, সেতু নিমার্ণ ও সংস্কার করার বিষয়টি দেখার দায়িত্ব রেলের প্রকৌশল বিভাগের। আমরা শুধু পরিবহন সেক্টর দেখি। এবিষয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। ঝুকিপূর্ণ সেতুর বিষয়টি জানা নেই বলেও জানান রেলের এই কর্মকর্তা ।

চলছে ট্রেন : দুর্ঘটনার আশংকা

ইমন রহমান নেত্রকোণা প্রতি নিধি : ঢাকা-মোহনগঞ্জ রেলপথের নেত্রকোণায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে দুটি রেল সেতু। জেলার ঠাকুরাকোণা কংশ নদীর উপর রেল সেতুটি স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ক্ষতিগ্রস্থ হলে সেসময় মেরামত করা হলেও গত চল্লিশ বছর ধরে চলছে নড়বড়ে অবস্থায়। ফলে যে কোনো মুর্হুতে দুর্ঘটনার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। তবে স্থানীয় রেল কর্তৃপক্ষ বলছে বিষটি দেখভালের দায়িত্ব তাদের নয়।
১৯২৭ সালে বৃটিশ আমলে ঠাকুরাকোণার রেল সেতুগুলো নির্মিত হলে ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের সময় বিধ্বস্থ হওয়ায় সে সময় সেতু দুটির আংশিক মেরামত করা হয়। এর পর থেকে জোড়া তালি দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে চলছে ট্রেন।
ঠাকুরাকোণা ও মোহনগঞ্জ সেতুর ফিলারে ফাটল দেখা দেওয়ায় যেকোনো সময় ভেঙ্গে পড়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। বর্তমানে রেল পারাপারের সময় সেতুগুলোতে কম্পনের সৃষ্টি হওয়ায় আতংকে রয়েছেন আশপাশের লোকজন।
কদমদেওলী গ্রামের আবুল কালাম আজাদ জানান, খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে রেল সেতুটি। কিছুদিন আগে রেল লাইন সংস্কার হলেও রেল সেতুটি সংস্কার করেনি কর্তৃপক্ষ। ফলে যেকোনো দিন বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
নেত্রকোণা শহরের সাতপাই এলাকার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম খান বলেন, সেতুটির কাঠের স্লীপারে কাঠের ছটি দিয়ে জোড়া তালি দিয়ে রাখা হয়েছে। যেকোনো মুহুর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
ওই এলাকার বাসিন্দা ইমুন আহমেদ জানান,সেতু দিয়ে ট্রেন যাওয়ার সময় কাঁপতে থাকে, যা ভয়ংকর অবস্থার সৃষ্টি হয়।
নেত্রকোণার বড় স্টেশনের মাস্টার মো: রফিক উদ্দিন, সেতু নিমার্ণ ও সংস্কার করার বিষয়টি দেখার দায়িত্ব রেলের প্রকৌশল বিভাগের। আমরা শুধু পরিবহন সেক্টর দেখি। এবিষয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। ঝুকিপূর্ণ সেতুর বিষয়টি জানা নেই বলেও জানান রেলের এই কর্মকর্তা ।

Check Also

ধামরাইয়ে ৩শত পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

মোঃ বুলবুল খান পলাশ, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ-ঢাকার ধামরাইয়ে নিজ ব্যক্তিগত তহবিল থেকে করোনাকালীন সময়ে পৌর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *