Breaking News
Home / অর্থনীতি / মেয়াদ পূর্তির টাকা দিচ্ছে না পদ্মা লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড

মেয়াদ পূর্তির টাকা দিচ্ছে না পদ্মা লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড

মোঃ জুয়েল রানা, স্টাফ রিপোর্টার, আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ

মেয়াদ পূর্তির টাকা দিচ্ছে না পদ্মা লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড
বীমা করে মেয়াদোত্তর সুবিধা পাচ্ছেন না নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াই হাজার থানার গ্রাহকরা। সংস্থাটির বিভিন্ন প্রকল্পের কয়েক হাজার আমানতকারী ঘুরছেন চেকের আশায়।

গ্রাহকদের এড়াতে এরই মধ্যে কয়েক দফা ঠিকানা বদল করা হয়েছে অফিসের। আগে তাদের অফিস ছিল আড়াই হাজার বাজারে বর্তমানে নারায়ণগঞ্জে চলছে এর কার্যক্রম। সেখানেই প্রতিদিন গ্রাহকরা ধরনা দিচ্ছেন। অভিযোগ রয়েছে প্রতারণারও। তবে কর্মকর্তাদের দাবি, বিধি মেনেই গ্রাহকদের মেয়াদোত্তর সুবিধার চেক প্রদানের চেষ্টা করছেন তারা।
পদ্মা লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ে কয়েকজন গ্রাহক তাদের চেকের খবর নিতে এসেছেন দেখেন অনেক লোক চেক পেতে ধরনা দিচ্ছেন অফিসে। একইভাবে ঘুরছেন সানিয়া বেগম ও তার সাথের অনেক লোক।
সামিয়া বেগম জানিয়েছেন, কর্মকর্তারা চেক দিতে পারছেন না। নানা অজুহাতে বার বার ঘুরাচ্ছেন। কর্মকর্তাদের এমন আচরণে জমানো অর্থ ফেরৎ পাওয়া নিয়েই শঙ্কিত তারা।
একই অবস্থা নারায়ণগঞ্জ জেলা, আড়াই হাজার উপজেলার, বিশনন্দী ইউনিয়ন , গাজীপুরার আর ও ২৪ জন গ্রাহক
তারা সবাই আড়াইহাজার বাজারে শাখার অধীনে গ্রাহক হয়েছিলেন। ১০ বছর আগে ওই শাখা খুলে ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব দেয়া হয় মো:সিরাজ সাহেবের ভাই হারুন সাহেব কে ।হারুন সাহেব ভুয়া রিসিট দিয়ে হাতিয়ে নিয়েছেন অনেক টাকা তার অদিনে ছিলেন। সামিয়া বেগম, বকলি আরো অনেকে এনারাই তাদেরর স্বজন ও পরিচিতদের বীমার আওতায় আনেন। মেয়াদ পূর্তির পর চেক না পাওয়ায় তিনিও বিপাকে। এর মধ্যে প্রধান কার্যলয়ের এক কর্মকর্তা মো: শিরাজ ওনি বলেছেন নারায়ণগঞ্জ অফিস থেকে পলিসি নাম্বার এনে দিতে পারলে ওনি ৩ দিনের মধ্যে চেক বের করে দিবে। কিন্তু এখন ওনার আচরণ রহস্যজনক।

আগামী মে মাসে আরও ছয়জনের বীমার মেয়াদ পূর্ণ হবে। তারা পাবেন ৩ লাখ ৪২ টাকা ৯০৪ টাকা। প্রতি মাসেই অন্তত ৫ থেকে ৭ জনের বীমার মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে। কিন্তু বার বার ঘুরেও চেক পাচ্ছেন না। উল্টো চাপ আসছে নতুন করে বীমা করতে। শীর্ষ কর্মকর্তাদের আচরণ রহস্যজনক।
চেক দেয়ার নাম করে বীমা কর্মকর্তাদের কথামত সোসাল ইসলামি ব্যাংকের গোপালদী শাখায় অ্যাকাউন্ট করিয়েছেন।
গ্রাহক হয়রানি নিয়ে জানতে চাইলে মো:সিরাজ তিনি কথা ই বলতে চাছেনা কল দিলে বিভিন্ন রকমের বাহানা দিয়ে কল কেটে দেন কিন্তু নিজেকে প্রতিষ্ঠানটির একক বীমা প্রকল্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দাবি করেন। কিন্তু কয়েক হাজার গ্রাহকের বীমার মেয়াদ পূর্ণ হলেও চেক দিচ্ছেনা প্রতিষ্ঠানটি।

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় উদ্বোধন

দুর্নীতি দমন কমিশনের ঠাকুরগাঁওয়ের সমন্বিত জেলা কার্যালয় উদ্বোধন উপলক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। রোববার জেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *