Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / রামেকে ফের রোগীকে লাঞ্ছিত করলেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা

রামেকে ফের রোগীকে লাঞ্ছিত করলেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হাতে মুক্তিযোদ্ধা লাঞ্ছিত হওয়ার পর এবার রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে এক কলেজ শিক্ষক লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রামেক হাসপাতালের চার নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী শিক্ষকের নাম মো. মামুন-অর-রশীদ। তিনি রাজশাহীর বঙ্গবন্ধু কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক। কিডনিজনিত সমস্যায় সকালে তিনি রামেক হাসপাতালে ভর্তি হন।ভুক্তভোগী শিক্ষকের অভিযোগ, সকালে ওয়ার্ডে বিছানা পরিবর্তন করা নিয়ে শিক্ষক মামুনের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন ওয়ার্ডে দায়িত্বরত এক নার্স।দুপুরে চিকিৎসকদের একটি দল ওয়ার্ড পরিদর্শনে আসে। এ সময় মামুন তার এক চিকিৎসক বন্ধুর পরিচয় দেওয়ায় চিকিৎসক দলটির সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়।এ সময় চিকিৎসক দলের প্রধান মামুনকে গালিগালাজ করেন ও নাম-পরিচয় লিখে নিয়ে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন।
এর কিছুক্ষণ পর ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতালের তিন জন আনসারকে নিয়ে এসে শিক্ষক মামুনকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। পরে চিকিৎসককে হুমকি ও নার্সদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ তুলে শিক্ষক মামুনের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে চলে যান তারা। এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানান শিক্ষক মামুন।
জানতে চাইলে রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস দৈনিক প্রভাত বার্তা নিউজ 24 কে বলেন, আমার কাছে এ বিষয়ে কেউই এখনো অভিযোগ করেনি। আমি কয়েকজনের কাছে বিষয়টি শুনেছি। এ বিষয়টির খোঁজ নিয়ে দেখছি।এর আগে, গত ২ সেপ্টেম্বর রামেক হাসপাতালে বিনা চিকিৎসায় একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর মৃত্যু হয়। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এর প্রতিবাদ করেন। এ সময় তাকে পিটিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। মারধর করা হয় মুক্তিযোদ্ধাকেও। এ নিয়ে আন্দোলনে নামেন রাজশাহীর মুক্তিযোদ্ধারা। মাঠে নামে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদও। পরে ওই মুক্তিযোদ্ধা দুই ইন্টার্ন চিকিৎসকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এরপর জেলা প্রশাসক উভয়পক্ষের মীমাংসা করে দেন।

Check Also

শাহ মখদুম বিমানবন্দরের উন্নয়নে প্রকল্প অনুমোদনে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মেয়র লিটন

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধিঃ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় শাহ মখদুম বিমানবন্দরের রানওয়ে সারফেসে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *