Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / ঠাকুরগাঁওয়ে বার কাউন্সিলের ২০১৭/২০২০ সালের (এমসিকিউ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মানববন্ধন

ঠাকুরগাঁওয়ে বার কাউন্সিলের ২০১৭/২০২০ সালের (এমসিকিউ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মানববন্ধন

“মুজিব শতবর্ষে মানবিক আচরণ করুন, আইন শিক্ষানবিশদের প্রতি সদয় হোন” এ শ্লোগানকে সামনে রেখে ঠাকুরগাঁওয়ে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ২০১৭/২০২০ সালের (  এমসিকিউ ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অনতিবিলম্বে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত করার দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ঠাকুরগাঁও বার এর প্রিলি: (এমসিকিউ ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সকল আইন শিক্ষানবিশদের আয়োজনে মঙ্গলবার সকালে ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিল প্রিলি: (এমসিকিউ)উত্তীর্ণ ঠাকুরগাঁও বার এর আইন শিক্ষানবিশ সমন্বয় পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর আলম, সমন্বয় পরিষদের সদস্য ফারুখ হোসেন, সানজানা সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। 
বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, আমরা কেউ বিগত ১০ বৎসর আগে,কেউ ৭ বা ৫ বৎসর আগে বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয় হতে আইন বিষয়ে ডিগ্রি অর্জণ করি। কিন্তু দূর্ভাগ্যজনক ভাবে বার কাউন্সিলের এ্যাডভোকেট তালিকাভুক্তির পরীক্ষা  ২০১৩ সালের পর ২০১৫ এবং ২০১৭ সালের পর একটানা ৩ বৎসর কোন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় আমরা আমাদের অনেকটা মূল্যবান সময় অতিবাহিত করেছি। 


পরবর্তীতে ২০২০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী (এমসিকিউ) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এর পর উক্ত ফল প্রকাশের ৩ মাসের মধ্যে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার বিধান থাকলেও বিশ্ব মহামারীর এই সংকট মুহুর্তে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের পক্ষে কোন পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি।  এ পরিস্থিতিতে হয়তো দেখা যাবে যতদিন করোনা মহামারী চলতে থাকবে ততদিন আমাদের পরীক্ষা বার কাউন্সিল গ্রহণ করবে না।  
মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে বিশেষ বিবেচনায় অবশিষ্ট পরীক্ষা থেকে অব্যহতি দিয়ে এ্যাডভোকেট হিসেবে তালিকাভুক্তির জন্য বিগত ২ মাস ধরে বার কাউন্সিল কর্তৃপক্ষকে স্মারক লিপি প্রদান করে অনুরোধ করে আসছি। কিন্তু এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সুদৃুষ্টি কামনা করে  আমরা এর একটা সঠিক সমাধান আশা করছি।

নুরে আলম শাহ,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ॥

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ১টি বাড়ি ভস্মীভূত

গীতি গমন চন্দ্র রায় গীতি, স্টাফ রিপোর্টার: ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ গতকাল রাত ১০/১১ ঘটিকার সময় হঠাৎ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *